নির্বাচন কমিশন নাকি অভ্র নামক একটা pirated soft ব্যবহার করে… ছিঃ ছিঃ

শুনলাম নির্বাচন কমিশন অফিসে নাকি অভ্র নামক একটা পাইরেটেড সফটওয়্যার ব্যবহার করা হয়!!! 😯 হায় হায়!!! বলে কি??? এই সংবাদটা জনকন্ঠতে আবার সম্পাদকীয়তে প্রকাশ হইছে 😐 !!!

অভ্র একটি creative common License এর free সফটওয়্যার । creative common License এর সফটওয়্যার কি ভাবে পাইরেটেড হয় সেটাই আমার মাথায় ঢুকতেছে না 😆 ।

স্বীকার করছি কম্পিউটারে windows/mac OS এ বাংলা লেখার জন্য একসময় বিজয়ই ছিলো একমাত্র সফটওয়্যার, কিন্তু বর্তমানে ইন্টারনেটে বাংলা ব্লগিং থেকে শুরু করে বাংলায় ই-মেইল করা পর্যন্ত সকল কাজে অভ্রের কোন বিকল্পই নেই। জব্বার কাগু যতই চিল্লা-ফাল্লা করুক না কেন, উনাকেও স্বীকার করতেই হবে অভ্রের কারণেই এখন “রোমান হরফে” বাংলা লেখার প্রবনতা কমে এসেছে, কারণ বেচারা ‘ বিজয় ‘ এ কাজগুলা করতে পারেনা। যারা আমার মতন সহজ-সরল (!) এবং ভুলোমনের ব্যক্তি তারাও একবাক্যে স্বীকার করবেন বিজয়ের ভয়াবহ lay-out মনে রাখতে গিয়ে ত্রাহি-মধুসূদন ডাক ছাড়তে হয় :(।আমি বেশ কয়েকবার বিজয় লে-আউট মুখস্ত করতে গিয়ে যখন প্রায় হাল ছেড়ে দিচ্ছিলাম, তখনি ইন্টারনেটে অভ্র ফনেটিক কি-বোর্ড খুঁজে পাই। এখন অবশ্য google ব্যবহার করেও ফনেটিক বাংলা লেখা যায় এই লিংক এ গিয়ে দেখুন

সবচেয়ে বড়কথা আমরা যারা লিনাক্সপ্রেমী , তাদের জন্য বিজয়ের কোন ভার্সনই নাই :(।

Somewherein Blog এ মারূফ মনিরুজ্জামান নামক একজনের ব্লগে একটা চমৎকার লেখা পড়লাম, যারা প্রোগ্রামিং সম্পর্কে কিছুটা জানেন তারা নিজেরাই নিজেদের মত একটা বাংলা কি-বোর্ড বানিয়ে নিতে পারবেন :D।

মোস্তফা জব্বার কম্পিউটারে বাংলা লেখার জন্য ১৯৮৮ সালে যে পদক্ষেপ নিয়েছিলেন সেটা আসলেই চমৎকার ছিলো। কিন্তু এখন তিনি অভ্রের নামে উল্টা-পালটা যা বলছেন সেগুলো মোটেই চমৎকার নয় 😡 :x। যারা অভ্র এবং IT সম্পর্কে জানেন জব্বার কাগুর চেঁচামেচিতে তারা কিছু মনে করবেন না, কিন্তু সাধারন জনগন অভ্রের স্রষ্টা মেহদি হাসান খান সম্পর্কে ভুল ধারণা নিয়ে বসে থাকবেন :(।

আমি একজন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ছাত্র মাত্র, কোন নামি-দামী IT বিশেষজ্ঞ নই । তবুও জব্বার সাহেব এর অভ্র এর বিরুদ্ধে এইসব কর্ম (নাকি অপকর্ম) পছন্দ না হওয়ায় আমার লেখনীতে যতটুকু জোড় ছিলো সেটি দিয়ে তার প্রতিবাদ করছি

” মোস্তফা জব্বার সাহেব, আপনি না নিজেকে একজন IT বিশেষজ্ঞ দাবী করেন?? তাহলে অবুঝের মতো এসব কী বলছেন? আপনি কম্পিউটারে প্রথম বাংলা কি-বোর্ডের উদ্দোক্তা হিসাবে অমর হয়ে থাকতে পারতেন। কিন্তু আপনি নিজের সম্মান নিজেই ধুলিস্যাৎ করছেন।”

আর জব্বার কাগু যদি নিজেকে বিজয়ের স্রষ্টা বলে দাবী করেন, তাতেও লাভ নাই । কারণ এখানে একটা মজার জিনিষ পেলাম যেটা ঠিক আপনাদের সাথে শেয়ার না করে থাকতে পারছি না ➡

যার ছবি দেখতে পাচ্ছেন তিনি হলেন বিজয়ের আসল প্রোগ্রামার । :mrgreen:

আমার অনেকদিনের আশা ছিলো অভ্রের স্রষ্টা কে একনজর দেখব । কিন্তু কথাও উনার কোন ছবি খুজে পাচ্ছিলাম না । কারণ বিজয়ের মত অভ্রের start up এ মেহদি ভাই নিজের ছবি বসান নাই :D। অবশেষে খুজঁতে খুঁজতে তার একটি ছবি পেলাম । আমার ক্ষমতা থাকলে আমি অবশ্যি মেহদি ভাই আর পুরো অভ্র টিমকে একুশে পদক দিতাম । উনাকে একুশে পদক দেয়া হবে কিনা, সেটা আমি রথী-মহারথীদের বিচারে ছেড়ে দিলাম।

শুধু একটি অনুরোধ যারা আমার এই ব্লগ পোস্টটি পড়ছেন তাদের কেউ যদি মেহদি ভাইয়ের পরিচিত হন, অনুগ্রহ করে তাকে আমার মতন ভক্তদের ভালোবাসার কথা জানিয়ে দেবেন 😀

সবাই ভালো থাকুন 🙂

Advertisements

9 responses to “নির্বাচন কমিশন নাকি অভ্র নামক একটা pirated soft ব্যবহার করে… ছিঃ ছিঃ

  1. অভ্র গ্রুপের একজন, সিয়ামরুপালি নামক জনপ্রিয় ফন্টের জনক সিয়াম আমারি ডিপার্টমেন্ট-এর ছোটভাই.
    তার কাছে গল্প শুনেছি মেহেদী ভাই এর সম্পর্কে… আমি তাকে ভিষন সম্মান করি
    এছাড়া আমার এই কমেন্টতা পর্যন্ত আমি গুগল দিয়ে করছি যেহেতু আমি সাইবার কাফে তে — জব্বার কাকা এখন আমাকে সাহায্য করতে পারবেন? অভ্র বাংলাকে সারাবিশ্বে ছড়িয়ে দিয়েছে … আমার জীবনে কোনো পদক দেয়ার ক্ষমতা থাকলে আমি মাস্ট দিতাম অভ্র টিমকে. আমার মতন পুরো বাংলা ভাষা তাদের কাচ্ছে ঋণী….. জব্বার কাকার বিজয় একটা সময় বাংলাকে কিছু দিয়েছিল. কিন্তু তাই বলে হিংসা করে কেন অভ্রর নামে ইতরের মতন, নির্বোধের মতন কথা বলতেসে এই লোকটা— তা আমার বোধগম্যহচ্ছেনা

  2. বিজয় এর প্রোগ্রামার যে পাপ্পানা, তা আগেই জানতাম। ACM ICPC World Final এ বাংলাদেশের যে টিম ১১তম হয়েছিল, তিনি তার একজন সদস্য। আমার জানা যদি ভুল না হয়ে থাকে তাহলে সে Microsoft এর ও একজন কর্মী এবং সে ছাত্র থাকা অবস্থায়ই নাকি Microsoft তার সাথে টেলিফোন এ কথা বলে তার চাকরি পাকা করে দিয়েছিল।
    যাই হোক মোস্তফা জব্বার এর এত ক্যাচাল দেখে আমার স্কুল এর গণিতের একজন শিক্ষক এর এক প্রিয় উক্তি মনে পরে গেল, “যে নদীর গভীরতা বেশি, তার বইয়ে চলার শব্দ কম।” আশা করি পাঠক বুঝে নেবেন আমি কি বুঝাতে চাচ্ছি।

    • ওহ! ভুলটা ধরিয়ে দেবার জন্য ধন্যবাদ 🙂 । হ্যাঁ পাপ্পানার কথা আমিও জানতাম , কিন্তু বিজয়ের মধ্যে উনার ছবি আছে সেটা জানা ছিলনা 🙂
      Youtube এ আরেকটা জিনিষ দেখলাম। আগে পেলে এটা Post এ দিতাম – দেখুন জব্বার যে পাপ্পানকে তার প্রাপ্য পারিশ্রমিক দেয়নি সেটা পাপ্পান নিজে Bijoy এর মধ্যে লিখে গেছেন এই লিংক এ দেখুন – http://www.youtube.com/watch?v=UrMVnOotPO8

  3. আরেকটা সংশোধন। পাপ্পানা ভাই বিজয়ের পরের ভার্সনের প্রোগ্রামার, কিন্তু বিজয় আরো আগের। ওইসময় ভারতীয় কোন এক প্রোগ্রামার কাজ করছিল

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s