বিল কাক্কুর windows এর ১২ টা বাজানোর Tips…

আজ আমি যে post টি লিখতে যাচ্ছি, সহজ ভাষায় সেটাকে বলে Operating System হ্যাকিং, বিল কাক্কুর (বিল গেটস) windows হ্যাকিং.তাই শুরুর আগে একটা signboard ঝুলিয়ে দিচ্ছি –

This post is for Educational purpose ONLY
😉


যাদের internet আছে তারা খুব ভালোভাবেই জানেন windows XP update করলে কিছুদিন পর Windows Genuine Advantage Notification Tool নামক একটি software নিজে থেকে উড়ে এসে জুড়ে বসে । যার কাজ হলো আপনি windows এর যে কপিটি ব্যবহার করছেন সেটি Genuine নাকি Pirated সেটা check করা (বলা-বাহুল্য আমরা ৪০/- টাকা দিয়ে windows এর যে CD গুলো কিনে থাকি সেগুলো সবই pirated 😐 )।

সবচেয়ে ভালো হয় install করার আগেই এটির কম্ম চুকিয়ে দেয়া। তার জন্য control panel এ গিয়ে Scheduled Tasks থেকে tools টা delete করে দিতে হবে। আর নেহাত যদি কোনভাবে এ ব্যাটাকে একবার install করা হয় তাহলে কিছুক্ষন পর পর এ ব্যাটার Not genuine notification এসে বিরক্ত করতে থাকে (এবং এই software টি uninstall করার কোন option নেই)। এটাকে সরাতে হলে যা করতে হবে-

১ম ধাপঃ PC reboot করুন। Boot করার সময় F8 চেপে রাখুন। এটা safe mode এ ON করার option পাবেন।

২য় ধাপঃ safe mode এ RUN এ গিয়ে regedit লিখে enter দিন। Registry Editor open হবে । এখান থেকে wgalogon নামক folder টা খুজে বের করে delete করে দিন।

৩য় ধাপঃ এর পর windows folder এ ঢুকে wma* লিখে search দিন। যে কয়টা file পাবেন, প্রত্যেকটা file এক এক করে delete করুন । কোন file যদি delete হতে না চায়, তাহলে রেখে দিন । এবার কম্পিউটারটা নরমাল মোড এ restart করুন। তারপর আবার windows folder এ ঢুকে বাকি ফাইলগুলো delete করে দিন।

ব্যাস Windows Genuine Advantage Notification Tool আর আপনাকে বিরক্ত করবে না। 🙂

সবশেষে বলে রাখি এতো ঝামেলা না করে একদম genuine লিনাক্স ব্যবহার করে দেখতে পারেন। লিনাক্স আসলেই প্রচন্ড শক্তিশালী একটা Operating System।

আমরা শুধু যে Windows এর pirated কপি আমরা ব্যবহার করি তা নয়, অনেকসময় windows এ চালানোর অন্যান্য software যেমনঃ Power DVD, NERO এবং Anti-virus / Internet Security এগুলোর pirated কপি, serial number, license key ও আমারা নেট থেকে নামিয়ে নেই।

লিনাক্সে ওই ‘illegal’ নামক শব্দটির কোন অস্তিত্ব নাই। এতে Anti-Virus এর কোন প্রয়োজন হয় না। MP3, DVD চালানোর জন্য হাজার হাজার চমৎকার সব software রয়েছে linux এ, যেগুলো আসলেই একদম free :D।

যারা ভাবছেন লিনাক্সে কাজ করার জন্য command ব্যবহার করতে হয় অথবা লিনাক্স এর graphics সাদামাটা, তারা একবার ubuntu এর live CD ব্যবহার করে দেখতে পারেন। live CD দিয়ে আপনার computer এ লিনাক্স install না করেও লিনাক্স এর স্বাদ চেখে দেখতে পারবেন। Ubuntu এর CD আপনারা যে কোন বড় computer market বা BDOSN (Bangladesh Open Source network) office থেকে যোগাড় করতে পারবেন। BDOSN বর্তমানে বাংলাদেশে লিনাক্সকে জনপ্রিয় করার জন্য কাজ করে যাচ্ছে।

আজকাল আমাকে কষ্ট করে নেট ঘেটে pirated software গুলো খুজে বের করতে হয় না 😀 কারণ লিনাক্সের যে software ই নামাই সেটাই genuine 😀 ।

আমাদের অতদাম দিয়ে windows এর আসল CD কেনার ক্ষমতা হয়তো নেই, তাই বলে pirated কপি কেন ব্যবহার করব??? Pirated হলেও windows ব্যবহার করতেই হবে এমন আদেশ কে দিয়েছে! আমাদের দেশটা গরীব হতে পারে… কিন্তু আমরা চোর নই…

আসুন না একবার চেষ্টা করে দেখি, সবাই মিলে?? 🙂

10 responses to “বিল কাক্কুর windows এর ১২ টা বাজানোর Tips…

  1. হা হা হা, আসলেই উইন্ডোজের ওই নোটিফিকেশন টা মহা বিরক্তিকর। আমি গত ৮ মাস ধরে উবুন্টু ব্যবহার করছি 🙂 . দারুণ আরামে আছি উবুন্টু তে। কিন্তু আমার একটা ছোট্ট সমস্যা , আমার smplayer টাতে .vob file গুলা রান করছে না ( Mplayer exit code -1) দেখায়। কিন্তু smplayer এ .mkv ফাইল গুলা ঠিকই রান করে। কোন সমাধান দিতে পারবেন প্লিজ?

  2. লিনাক্স এ কি স্টুডিও সফটও্যার (যেমনঃ Adobe PhotoShop, Illustrator, Premiere Pro, Autodesk 3Ds Max etc) ব্যাবহার করা যাবে? আরেকটা কথা…… উল্লেখিত সফটও্যার গুলোতে অভ্র দিয়ে লিখতে পারছি না… বিজয় ভাল্লাগে না… কিন্তু অই সফটও্যার গুলোর জন্য বাদ্ধ হয়ে ব্যাবহার করতে হয়……। কোনো ভাবে সাহায্য করতে পারলে অনেক অনেক উপকৃত হব।

    • হ্যাঁ যাবে । এর জন্য আপনাকে Wine নামক একটা software Linux এ ইন্সটল করে নিতে হবে – http://www.winehq.org/ । Wine ব্যবহার করে আপনি Windows এর যে কোন software লিনাক্স এ ব্যবহার করতে পারবেন।
      এছাড়া VMware অথবা অন্য কোন virtual soft দিয়ে আপনি linux এর মধ্যে windows environment তৈরি করে windows এর সফটওয়ার ব্যবহার করতে পারবেন ।
      আর Adobe PhotoShop, Illustrator, Premiere Pro, Autodesk 3Ds Max তে বাংলা লেখার জন্য মেহদী ভাইয়ের লেখা একটা আর্টিকেল আছে, এখানে দেখুন- http://www.sachalayatan.com/omicronlab/31660 😀 সুতরাং চিন্তা নাই। অভ্র দিয়েই Photoshop এ লিখতে পারবেন 😀

  3. যারা ভাবছেন লিনাক্সে কাজ করার জন্য command ব্যবহার করতে হয় অথবা লিনাক্স এর graphics সাদামাটা, তারা একবার ubuntu এর live CD ব্যবহার করে দেখতে পারেন। live CD দিয়ে আপনার computer এ লিনাক্স install না করেও লিনাক্স এর স্বাদ চেখে দেখতে পারবেন।

    ubuntu এর চেয়ে অনেক সহজ হইল linux mint.
    আমার ধারনা ubuntu এর শ্লোগান যদি হয় “linux for human.”
    তবে linux mint এর শ্লোগান হওয়া উচিত “linux mint for kids.”

    এ কথা গুলো বলার একমাত্র কারন, সকলকে বোঝানো যে linux বর্তমানে সহজের কোন স্তরে পৌঁছে গেছে।
    linux mint এ “double click” করলে পর্যন্ত software install যায়।

    শুধু তাই নয় linix mint এ প্রায় সবধরনের Audio-Video Codec (*.mkv পর্যন্ত)দেওয়া আছে।

    একবার ব্যবহার করেই দেখুন না-
    **একাধিক desktop
    ** wooby window ইত্যাদি
    কত মজা আছে এই ফ্রী জিনিস এ।

    linux mint 9 “isadora” gnome dvd(32bit)-র download link.(almost all codec included)
    linux mint 9 “isadora” gnome cd(32bit)-র download link.

    সবগুলোই live version.

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s